ছোটাছুটি অনর্গল

ছুটছি আমি সুখের খোজে, প্রাচুর্য্যের আল ধরে
শান্তি রুপী ঘাম ছুটেছে, হচ্ছে শুষ্ক ধর এ
সুখ নামের এই মরিচিকা, দেয় না মোটেই ধরা
নাগাল ছেড়ে, ছিটকে সে যায়, ধর্ম যে তা’র ওঁরা

শরীর আমার পরিশ্রান্ত, মন ও হোচট খায়
অবুঝ মগজ ছুটছে তবু, তা’র কোনো নেই দায়
“খুড়োর কল” এ ঝুলছে যে সুখ, খাচ্ছে শুধুই দোল
মগজ নয়ন বিস্ফারিত, মাপছে যে তার মোল

সুখ এর পরিধি, তা বিরাট, প্রচুর আছে তাতে
ফ্ল্যাট টপকে বাংলো তে সে, উঠবে আজই জাতে
হ্যাচব্যাক আর চলবে নাকো, সেডান আমার চাই
বাতানুকুল বাড়ি গাড়ি, গ্রীষ্মের মুখে ছাই

লোটা-কম্বল গুটিয়ে নিয়ে, বছর বছর ধরে
ভ্যাকেশন এ যেতেই হবে, অন্তত দুই বারে
দেশ তো হলো মামুলি আজ, বিদেশ ভ্রমন বড়
রেল গাড়িতে গরিব চাপে, প্লেন এ তবে উড়ো

ছেলে মেয়ের স্কুলে যেন, ঘোড়-সওয়ারী থাকে
ঘোড়া’র উপর বসে ঘোড়া, মিষ্টি দেখায় তাকে
টেনিস, ক্রিকেট একাডেমী, যাবে আমার ছেলে
নিদেন পক্ষ্যে বল পিটিয়ে, হবেই যে সে পেলে

অঙ্কনে সে হবেই হুসেন, তবলা বাদ্যে জাকির
সব্যসাচী করব তাকে, নেই কোনো স্থান ফাকি’র
বাজার হাট এর জন্য মলে, করব যাতায়াত
গ্রাম এর চাষী’র সব উপজে, মিশে আছে খাদ

ফুটপাথ এর ওই সব দোকানি, করছে শুধুই চুরি
৫০০’র মাল ২০০০ এ, কেনায় বাহাদুরি
ধার কথা টা ব্রাত্য যে আজ, ব্যাঙ্ক যে দেবে লোন
লোন পরিমান বলবে আপনি, কত বড় হন

এই সুখেরই খোজে আমি, ছুটছি দিক বিদিক
সম্পর্ক করছি ধ্বংশ, কুড়িয়ে শুধুই ধিক
পড়ব যখন মুখ থুবরে, সুখ কি পাব পাশে?
আপন জন কি চাইবে ফিরে, এমন অবকাশে?

হয়ত তখন ভাবব বসে, সুখের পরিভাষা
গাড়ি বাড়ির পিছন ছোটা, দিয়েছে কি আশা?
ব্যাঙ্ক গুলো কি করেছে মাফ, ছেড়েছে কি পিছু?
একলা হয়ে হলনা কি, মাথা আমার নিচু?

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.