ছন্দের খোঁজে

সকাল থেকেই ভাবছি বসে, কি লিখি, কি লিখি
মনের মধ্যে উথাল-পাথাল, কথার ঝিকিমিকি
কথা গুলো আপন ভোলা, বাক্যালাপই বন্ধ
সব কথাকে গুছিয়ে তুলে, আসবে কি আজ ছন্দ?

ছন্দের খোঁজে বাহির পানে, যখন ফেরাই দৃষ্টি
অণুস্তুপ ছন্দে যেন, হচ্ছে বারি বৃষ্টি
আনন্দগান গাইছে যেন, আকাশ বাতাস মিলে
তৎসহ দিচ্ছে যে তাল, পরিপূর্ণ ঝিলে

সিক্ত পথে, রিক্ত শিশু, সুখ যে তাহার নাই
মাথার উপর আচ্ছাদন, সে, উড়ে গেছে তাই
অগত্যা সে ভীরু পায়ে, খোঁজে এক আড়াল
প্রকৃতি’র এই ভালোবাসা, পোষায় না আজ কাল

সদ্যজাত কুকুরছানা, সেও কাতর, ভিজে
কুকুর মাতা আগলে রাখে, ছাদ হয়ে সে নিজে
উপলব্ধি হলো হঠাৎ, খুঁজে না পাই ছন্দ
টাপুর টুপুর হলো যেন, কলরব এক মন্দ

জীবন ছন্দ বড়ই জটিল, মস্ত বড় ধাঁধা
স্থান, কাল ও পাত্র বিশেষ, তারই সাথে বাঁধা
কারো মনে আলো’র ছন্দ, কারো মন আঁধার
ছন্দ খোঁজার কালেই ছন্দপতন যে আমার

Leave a Reply