সুখ এবং সারমেয়

গতকাল ঠিক মাঝরাতে, ভেঙ্গে গেল ঘুম
বুকের মাঝে হচ্ছে শব্দ, দুম দ্রাদুম দুম
ধরফরিয়ে উঠি, ঘর্মাক্ত কলেবরে
বেশ তো ছিলাম, শান্ত জীবন, হলটা কি ওরে!

চারিদিকের অন্ধকার, দেখতে যে না পাই
হাত বাড়িয়ে সুইচ টা টিপি, বৃথা চেষ্টা টাই
মাথার উপর পাখা খানাও, আছে যে নিস্পন্দ
ফ্রিজ এর চেনা গুনগুনানি, সেটাও যেন বন্ধ

জানালা দিয়ে উকি মেরে, বাহির পানে দেখি
গুটি কয়েক সারমেয়, ঘুরছে ইতি উতি
তাদের কোনো ভ্রুক্ষেপ নেই, মহানন্দে ছোটে
“ভৌ-কারে” উপস্থিতি জানান দিয়ে ওঠে

ভাবি আমি, দিব্যি আছে, সারমেয়র দল
কারেন্ট যাওয়ার শোক পালন, করবি কি না বল!
আগামী কাল কি ছুটতে হবে, সকাল সকাল মিটিং
হবে দিতে ক্লায়েন্ট কুলে, অসহ্য সেই সিটিং?

কিংবা ভাবায় কেমন করে EMI টা হবে?
ক্রেডিট কার্ড এর বিল এসেছে গতকালই সবে!
ছেলের স্কুল এর admission , তাও সামনে আছে
বউ এর বায়না, উটি যাবে, সে উঠেছে গাছে

এত চিন্তা ভিড় করলে, বুক ধরফর হবে
আছিস তোরা খোশমেজাজে, হলো খাওয়া সবে
মানব পুত্র আশা করে, যদি কুকুর হত
সব কিছু সে বেবাক ভুলে, সুখের চূড়া ছুত

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.